জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের আজ সোমবার (৩ জুন) ৭৩ বছর পূর্ণ করছে। দেশভাগের পর ১৯৪৮ সালের ৪ জানুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হলে সংগঠনটির পথচলা শুরু হয়।
প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে সংগঠনটির নাম ছিল ‘পূর্ব পাকিস্তান মুসলিম ছাত্রলীগ’। পাকিস্তান আমলে ‘মুসলিম’ শব্দটি বাদ দেয়া হয়। স্বাধীনতার পর নাম হয় ‘বাংলাদেশ ছাত্রলীগ’। সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ১৯৬৬ সালের ছয় দফা, ১৯৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান, ১৯৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধ আর নব্বইয়ের স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে।
দিনটি উপলক্ষে তিনদিনের বিস্তারিত কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সংগঠনটি। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কেক কাটা, শীতবস্ত্র ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ, আলোচনা সভা ও স্বেচ্ছায় রক্তদান প্রভৃতি। আজ রোববার (৩ জানুয়ারি) রাতে এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব কর্মসূচির বিষয়ে জানান ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।
আজ সকাল সাড়ে ৭টায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ও দেশব্যাপী সংগঠনের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। সকাল ৮টায় কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন করবেন। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল প্রাঙ্গণে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হবে। সকাল ১০টায় টুঙ্গিপাড়ায় চিরনিদ্রায় শায়িত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, সূরা ফাতেহা পাঠ এবং দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করবে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের প্রতিনিধি টিম।
একইদিন বিকেলে রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তন প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধন ও আলোচনাসভার আয়োজন করবে ছাত্রলীগ। এছাড়াও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী বুধবার (৬ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি সংলগ্ন স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ও শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) একই সময়ে অপরাজেয় বাংলা সংলগ্ন বটতলায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করবে ছাত্রলীগ।
বিজ্ঞপ্তিতে সোমবারের আলোচনা সভায় সংযুক্ত হতে এবং অন্যান্য কর্মসূচি স্ব স্ব ইউনিটে সুবিধাজনক সময়ে বাস্তবায়নের জন্য নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর প্রাক্কালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ শিক্ষা-শান্তি প্রগতির মূল মন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে গৌরবগাঁথা ইতিহাসকে সমুন্নত রাখতে ও জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়নের পথে আরও একধাপ এগিয়ে যাবে।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন ভবনে দেয়ালিকা ও গ্রাফিতি অঙ্কন করা হয়েছে। তাতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে ছাত্রলীগের প্রত্যয় ও বিভিন্ন স্লোগান তুলে ধরা হয়েছে।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here