টাঙ্গাইলের সদর থানার রসুলপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষক অনিল কুমার দাস ও তার স্ত্রী কল্পনা রানীকে হত্যা করার অভিযোগে ৬ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন-স্বপন কুমার দাস, জাহিদুল ইসলাম, ফরহাদ, মনিরুজ্জামান ভুইয়া, মঞ্জুরুল ইসলাম ও শয়ান মিয়া।

রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, অনিল কুমারের সৎ ভাই স্বপন কুমার দাস অন্যান্য আসামিদের সঙ্গে যোগসাজশে পূর্ব-পরিকল্পিতভাবে সম্পত্তি আত্মসাতের জন্য কৌশল অবলম্বন করতে থাকেন। স্বপনের সঙ্গে অন্য আসামিরা ভিকটিম অনিল কুমারের সম্পত্তি আত্মসাৎ করার জন্য তিনটি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেওয়ার পরিকল্পনা করেন। ২০১৭ সালের ২৬ জুলাই টাঙ্গাইলের রসুলপুরের বাসায় পূর্ব-পরিকল্পিতভাবে অনিল ও তার স্ত্রী কল্পনাকে হত্যা করে তারা। হত্যার পর তাদের মরদেহ বস্তায় ভরে বাসার বাথরুমের সেফটি ট্যাঙ্কের ভেতর ফেলে রাখে। এরপর পুলিশ খবর পেয় তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় অনিল কুমারের ছেলে নির্মল কুমার দাস বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর খানায় মামলা করেন।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here