তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত অর্থনৈতিক প্যাকেজে ভিক্ষুক থেকে শিল্পপতি, সবার জীবন ও জীবিকা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের পর রোববার দুপুরে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। ঢাকায় মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবন থেকে তিনি এ বক্তব্য দেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ যে ঐতিহাসিক এবং সাহসী ঘোষণা দিয়েছেন, ‘এটি আশপাশের দেশ এমনকি ভারতের তুলনায় আনুপাতিক হারে অনেক বড় প্যাকেজ। ভারতে তারা তাদের জিডিপির ০.৮ শতাংশ অর্থনৈতিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। আর বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী যে ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন, তা আমাদের মোট জিডিপির ২.৫২ শতাংশ।’

ঘোষিত অর্থনৈতিক প্যাকেজের বিশেষত্ব বিশ্লেষণ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, এর মধ্যে কয়েকটি প্যাকেজ ‘রিভলভিং’ যা থেকে প্রকৃতপক্ষে ১ লাখ ৩৬ হাজার কোটি টাকারও বেশি অর্থায়ন সম্ভব।

তথ্যমন্ত্রী জানান, এই প্যাকেজের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী কয়েক মিলিয়ন পরিবারের জন্য ৬৮০ কোটি টাকা নগদ বরাদ্দ ও অপেক্ষাকৃত অধিক দারিদ্র্যপীড়িত ১০০ উপজেলার সব বয়স্ক ও বিধবাকে ভাতা প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, বৈশ্বিক মন্দার আশঙ্কা ও বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এর সম্ভাব্য প্রভাবসহ সব বিষয় বিবেচনায় এনে প্রধানমন্ত্রী যে ঘোষণা দিয়েছেন, তা যুগান্তকারী ও সর্বমহলে অভিনন্দিত হয়েছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যেভাবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে পৃথিবীর সামনে উদাহরণ সৃষ্টি করেছে, আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস, তাঁর ঘোষিত অর্থনৈতিক এ প্যাকেজের সঠিক বাস্তবায়নের মাধ্যমে করোনাভাইরাস মোকাবিলায়ও বাংলাদেশ পৃথিবীর সামনে উদাহরণ সৃষ্টি করতে পারবে।’

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here