কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বিভিন্ন প্রজাতির ও রংয়ের ডলফিনের বিরল দৃশ্য

শেয়ার করুন:

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে লাগাম হীন মানুষ থেমে গেলেও ধীরে ধীরে প্রাকৃতিক ভারসাম্য ফিরে পাচ্ছে পৃথিবী। এমন একটি দৃষ্টান্তের সাক্ষী হলো বাংলাদেশে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার। যেখানে একসময় সারাক্ষণ ছিল মানুষের কোলাহল আর পরিবেশ নষ্ট করার উপকরণ, সেখানে এখন বিরাজ করছে নিস্তব্দতা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সমুদ্রসৈকতে ভ্রমণ নিষিদ্ধ করার পর স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে প্রাকৃতিক পরিবেশ। বিশেষজ্ঞদের মতে এটা একটা ভালো সময় আমাদের সিদ্ধান্ত নেয়ার আমরা কিভাবে পরিবেশ বিপর্যয় থেকে মানুষকে বিরত রাখতে পারি। যেভাবে গত কয়েকদিনে ঝাকে ঝাকে বিভিন্ন প্রজাতির ও রংয়ের ডলফিন এতো কাছাকাছি এসে খেলছে তা প্রমাণ করে পরিবেশ ধীরে ধীরে তাদের বিচরনের জন্য অনুকুল হচ্ছে। কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের কলাতলী পয়েন্টের এ বিড়ল দৃশ গত ত্রিশ বছরে দেখা মেলেনি। এর আগেও মাঝে মাঝে ডলফিনের দেখা মিলেছিল বিচ্ছিন্ন ভাবে। ভবিষ্যতেও ডলফিনের এমন বিচরন স্বাভাবিক রাখতে কিছুদেনের জন্য হলেও মাঝে মাঝে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতকে জনশূণ্য করার আহবান করেছেন পরিবেশবিদ গন।


শেয়ার করুন:

রিপ্লাই/মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন