করোনায় দীর্ঘদিন বন্ধের পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষা কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে দিয়েছে নানান নির্দেশনা।
‘করোনা পরবর্তী পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুনরায় চালুকরণ’ শীর্ষক নির্দেশিকা প্রণয়ন করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। গত শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) রাতেই সকল মাধ্যমিক, স্কুল ও কলেজ, উচ্চ মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক আওতাভূক্ত উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানদের কাছে পাঠানো হয়েছে বার্তাটি।

মাউশি’র পাঠানো এই বার্তায় বলা হয়েছে, এ নির্দেশিকা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়। একইসাথে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ পাওয়ামাত্র শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করে ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুত থাকতেও বলা হয়েছে।

উক্ত নির্দেশনায় বলা হয়েছে যে, শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠানে আসতে হবে। ক্লাসরুমের বেঞ্চগুলোকে তিন ফুট দূরত্বে রাখতে হবে। এবং প্রতি বেঞ্চে একজন করে শিক্ষার্থী বসতে পারবে।

স্কুলে প্রবেশের আগেই থার্মোমিটার দিয়ে তাপমাত্রা পরীক্ষা করা এবং সকল শিক্ষার্থীর মাস্ক ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক করতে হবে। দীর্ঘদিন প্রতিষ্ঠান বন্ধের পর শিক্ষার্থীদের মানসিক চাপ থেকে মুক্ত রাখতে এবং শিক্ষার পারিবেশ নিশ্চিত করতে প্রথম দু’সপ্তাহ খেলাধুলাসহ বিভিন্ন বিনোদনের আয়োজনের কথা বলা হয়েছে।
এতে আরো বলা হয়েছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার প্রথম দু’মাসের মধ্যে কোন পরীক্ষা নেওয়া যাবে না। যেন শিক্ষার্থীদের উপর কোন প্রকার চাপ সৃষ্টি না হয়। ধীরে ধীরে পরিস্থিতি বিবেচনায় সকল কার্যক্রম এগিয়ে নেওয়া হবে বলেও জানান।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here