ভূমিকম্পের পর যৌন হয়রানির হুমকিতে মরক্কোর নারীরা, দেওয়া হচ্ছে বিয়ের প্রস্তাব

0 181

অনলাইন ডেস্ক:

মরক্কোতে ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর অনিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন নারীরা। দেশটিতে এখন অল্প বয়সী নারীদের বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে। আর অনলাইনে এ সংক্রান্ত বিভিন্ন পোস্ট দিচ্ছেন পুরুষরা। ফলে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মরক্কোর নারী অধিকার কর্মীরা।

গত ৮ সেপ্টেম্বর ৬.৮ মাত্রায় ভয়াবহ ভূমিকম্প আঘাত হানে আফ্রিকার দেশ মরক্কোতে। আটলাস পাহাড়ী অঞ্চলে ছিল এর উৎপত্তি স্থল।

ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতা করার জন্য তথাকথিত সেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করছে একজন প্রাপ্ত বয়স্কো পুরুষ। তিনি ১০ বছর বয়সী এক মেয়ের সঙ্গে দাঁড়িয়ে আছেন।

ওই লোকটি তার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিখেছেন, সে আমার সঙ্গে আসতে চায় না, তবে সে বড় হলে তাকে বিয়ে করব।

ফেসবুকে ‘সিটি গার্ল’ নামে আরও একটি জনপ্রিয় পেইজ রয়েছে। যেখানে নারীদেরকে এভাবে তিরস্কার করা হচ্ছে।

মরক্কোর নারী অধিকারকর্মীরা বলছেন, ভূমিকম্পের পর তারা সতর্ক অবস্থানে রয়েছেন। কারণ অনেক পুরুষ গ্রামে ভ্রমণ করে নারীদের সহযোগিতার করার নামে অল্প বয়সী মেয়েদের বিয়ে করার প্রস্তাব দিচ্ছেন।

চলতি সপ্তাহে অনলাইনে এ ধরনের প্রচারণার জন্য এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া ২০ বছর বয়সী এক ছাত্র ভূমিকম্পের পর দুর্ঘটনা কবলিত এলাকায় ঘুরে এ ধরনের প্রচারণা চালাচ্ছে। তার উদ্দেশ্যেই মূলত অল্প বয়সী মেয়েদের যৌন হয়রানি করা।

বেনসলিম্যান এবং তার অন্যান্য সংগঠন মিলে এখন নারীদের নিরাপত্তায় কাজ করছে। তারা মানুষের কাছে এ বিষয়ে সতর্কমূলক বার্তা দিয়ে যাচ্ছে।

গত সপ্তাহে ষষ্ঠ রাজা মোহাম্মাদ এক কনফারেন্সে শিশুদের নিরাপত্তার কথা জানান। এছাড়া স্থানীয় এনজিও শিশুদের নিরাপত্তায় কাজ করছে।

মরক্কোর আঞ্চলিক পরিচালক বলেন, ভূমিকম্পের পর কিছু স্থানে যৌন হয়রানির কথা শোনা যাচ্ছে। তবে এটা সত্যি নয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.