আর্ন্তজাতিক ডেস্ক :

দেশটির বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রায় প্রতিদিনই বাংলাদেশির আক্রান্ত ও মৃত্যুর খবর আসছে। এমন পরিস্থিতিতে

ব্যাপক শঙ্কা ও অনিশ্চয়তার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন স্থানীয় নাগরিকসহ প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

দেশটিতে গত ২৪ ঘন্টায় ৭ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। যা একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের নতুন রেকর্ড।

মালয়েশিয়ায় রবিবার একদিনে করোনাভাইরাস সংক্রমণের নতুন রেকর্ড তৈরি হয়েছে‍। এদিন দেশটিতে নতুন করে আরও ৮৭১ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। দেশটিতে করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর এটিই একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের ঘটনা। মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম বেরনামা-র বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

যুক্তরাষ্ট্রের জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের তথ্য অনুযায়ী, মালয়েশিয়ায় এখন পর্যন্ত মোট ২০ হাজার ৪৯৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মালয়েশিয়ার স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক ড. নূর হিশাম জানিয়েছেন, করোনার প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সবাহ রাজ্যে।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় গত মঙ্গলবার থেকে রাজধানী কুয়ালালামপুর ও সাবাহ রাজ্যসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। এর আওতায় লোকজনের চলাচল নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিয়ে ও খেলাধুলার অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ করা করা হয়েছে। বিনা প্রয়োজনে নিজ জেলার বাইরে যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

দেশব্যাপী চলমান ন্যাশনাল রিকভারী প্ল্যানের প্রথম ধাপের কঠোর লকডাউনের পরও কোনোভাবেই করোনা সংক্রমণ কমাতে পারছে না মালয়েশিয়া। করোনার ভয়াল থাবা থেকে বাদ পড়ছেন না প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। বহু জাতিগোষ্ঠীর দেশ মালয়েশিয়ার বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রতিদিনই বাংলাদেশি মৃত্যুর খবর আসছে।

 

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here