দেশীয় সংবাদঃ করোনা মোকাবিলায় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অনেককে মাস্ক দেওয়া এবং সচেতনতা বাড়াতেও নানা কর্মসূচি নেওয়া হয়।

চট্টগ্রামঃ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন চট্টগ্রামের বিভিন্নস্থানে করোনা মোকাবেলায় করনিয় কি কি সে বিষয়ে সর্তকতা মূলক প্রচারনা করেন। দূরপাল্লার গাড়িতে আসা যাত্রীদের মাস্ক না থাকলে শহরে প্রবেশ করতে পারবেনা বলে জানান এবং শহরে প্রবেশের মুখে পুলিশি চেকপোষ্ট বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন। প্রশাসক নগরীর বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গু নিধনে মশার ঔষধ ছিটিয়ে সকলের আশপাশ পরিস্কার রাখার জন্য অনুরোধ করেন।

ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহ এলাকার টাউন হল মোড় ও নতুন বাজার এলাকায় অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাইদুল ইসলাম। এ সময় মাস্ক না পরায় ১১ জনকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া যাদের কাছে মাস্ক নেই তাদের মাস্কও দেওয়া হয়।

রাঙামাটিঃ রাঙামাটিতে কয়েক দিন ধরে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের কারণে এখানে মাস্ক ছাড়া কাউকেই সেবা দেওয়া হচ্ছে না। এ ছাড়া দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ ও মোটরসাইকেল আরোহীদের হেলমেট পরার বিষয়ে অভিযান চালানো হয়।

নেত্রকোনায়ঃ সর্ব সাধারণের মাস্ক ও স্যানিটাইজার ব্যবহার নিশ্চিত করতে নেত্রকোনায় কঠোর হওয়ার নির্দেশনা দেন জেলা প্রশাসক। সোমবার (২৩ নভেম্বর) নিজ কার্যালয়ে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার থেকে এ ব্যাপারে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে বলেও সভায় নিশ্চিত করা হয়। জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে স্বাস্থ্য অধিদফতর, জনস্বাস্থ্য বিভাগ, স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভার্চুয়াল ব্যবস্থাপনায় ১০ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অংশ নেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আবদুর রহমান জানান, জেলার সব স্থানে জনসমাগম হবে এমন সব অনুষ্ঠান বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পরে জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগের সহযোগিতায় প্রতি উপজেলায় ২ হাজার করে সাবান বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here