নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মিজমিজি এলাকার কান্দাপাড়ায় তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিক দুই বোনকে ধর্ষণের অভিযোগে আবু বক্কর (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
সোমবার ১২ অক্টোবর) দিনগত রাত সাড়ে ১২টায় কান্দাপাড়া এলাকার জাহাঙ্গারীরের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আটক আবু বক্কর ওই বাড়ির কেয়ার টেকার হিসেবে কাজ করতেন।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ফারুক বলেন, ‘গত ৫ অক্টোবর রাত আনুমানিক ১০টায় মৌচাক এলাকার পোশাক কারখানায় কাজ শেষ করে আপন দুই বোন (১২ ও ১৫ বছর) বাসায় যাওয়ার পথে নাতনি বলে ডেকে নিয়ে যায় আবু বক্কর। পরে ওই বাড়ির নিচ তলার ফ্ল্যাটে দুই বোনকে আটক রেখে ধর্ষণ করে। পরে তাদের বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হত্যার হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়। ঘটনার ৭দিন পর আজ রাতে দুই বোনসহ তার পরিবারের সদস্যরা থানায় এসে অভিযোগ দেয়। যার প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত আবু বক্করকে আটক করা হয়েছে।’
ঐ দুই কিশোরীর বাবা জানান, তিনি একটি ডেকোরেটরের দোকানে চাকরি করেন। তার এক মেয়ের বয়স ১২, অপরটির বয়স ১৫। মেয়ে ২ জনকে তিনি স্থানীয় হোসিয়ারীতে কাজে লাগিয়েছিলেন। নিয়মিত কাজে না যাওয়ায় তিনি ছোট মেয়েকে মারধর করার কারণে তার ২টি মেয়েই ভয়ে গত ৫ অক্টোবর আর কাজ থেকে সন্ধ্যায় বাসায় না ফিরে এলাকায় ঘুরছিল। এ সুযোগে আবু বক্কর মেয়ে ২টিকে ফুসলিয়ে তার সাথে ঐ বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। অনেক রাতে বাড়ীতে ফিরে এলে মেয়েরা পরের দিন বিষয়টি খুলে বলে। সে রাতেই (৬ অক্টোবর) সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দেন।
পরবর্তীতে বিষয়টি জানাজানি হলে এক পর্যায়ে সোমবার এলাকার যুবকরা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত আবু বক্করকে ৬ তলার উপরের একটি কক্ষ থেকে দরজা ভেঙ্গে আটক করেন ।

মন্তব্য করুন

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন