বাংলাদেশের জনপ্রিয় রাইড শেয়ারিং অ্যাপ ‘পাঠাও’ এর সহপ্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ নৃশংসভাবে খুন হয়েছেন। নিউইয়র্কে তার ফ্ল্যাট থেকে মাথাবিহীন মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিউইয়র্ক ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি নিউজের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) ম্যানহাটন এলাকার নিজ অ্যাপার্টমেন্ট থেকে তার ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিউইয়র্ক পুলিশের কর্মকর্তা সার্জেন্ট কার্লো নিভস জানান, ওই অ্যাপার্টমেন্ট থেকেই তার খণ্ডিত অঙ্গপ্রত্যঙ্গ উদ্ধার করা হয়েছে। ‘ঘটনাস্থলে আমরা খণ্ড দেহ, বিচ্ছিন্ন করা মাথা ও হাত পা পেয়েছি। সবকিছু এখনও সেখানে আছে।’

পুলিশ সূত্রকে উদ্ধৃত করে ডেইলি নিউজ জানিয়েছে, মঙ্গলবার সারাদিন ভাইকে একবারও চোখে না দেখায় ৯১১ নম্বরে ফোন করেন ফাহিমের বোন। এরপর পুলিশ এসে অ্যাপার্টমেন্টের ৭ম তলা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

যুক্তরাষ্ট্রের বেন্টলি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনফরমেশন সিস্টেম পড়াশোনা করতেন ফাহিম। নাইজেরিয়া আর কলম্বিয়ায় তার দুটি রাইড শেয়ারিং অ্যাপ কোম্পানি রয়েছে।

১৯৮৬ সালে জন্ম ফাহিমের। তার বাবা সালেহ উদ্দিন বড় হয়েছেন চট্টগ্রামে আর মা নোয়াখালীর মানুষ। ফাহিম পড়াশোনা করেন ইনফরমেশন সিস্টেম নিয়ে আমেরিকার বেন্টলি বিশ্ববিদ্যালয়ে। থাকতেন নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনে।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here