করোনার জীবনরক্ষাকারী ওষুধ ডেক্সামেথাসোন


করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর প্রথম জীবন রক্ষাকারী ওষুধ হিসেবে ডেক্সামেথাসোন (Dexamethasone) প্রয়োগে যুগান্তকারী ফলাফল পেয়েছেন যুক্তরাষ্টের বিজ্ঞানীরা। ওষুধটি বাংলাদেশে করোনা রোগীদের চিকিৎসায়ও ব্যবহার করা হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি মঙ্গলবার (১৬ জুন) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

সংবাদমাধ্যমটি বলছে, ব্যাপকভাবে সস্তা ও সহজলভ্য এ ওষুধটি কোভিড-১৯ এ সংক্রমিত হয়ে গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তিদের জীবন বাঁচাতে পারে।

ডেক্সামেথাসোন প্রয়োগ করলে ভেন্টিলেটর সাপোর্টে থাকা ও অক্সিজেন সাপোর্টে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে মৃত্যুঝুঁকি কমায়।


অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মার্টিন ল্যানড্রে বলেন, ‌কৃত্রিম অক্সিজেনের সাহায্য লাগছে বা ভেন্টিলেটরে রয়েছে এমন করোনা রোগীদের দেহে এ ওষুধ প্রয়োগ করে দেখা গেছে, তাদের এক তৃতীয়াংশ প্রাণে বেঁচে যাচ্ছেন। এবং সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো, এ ওষুধের খরচও খুব বেশি নয়। কোনও ধরনের সংক্রমণ কমানোর জন্য এ ওষুধটি ব্যবহার করা হয়।‌
মার্টিন ল্যানড্রে ও পিটার হরবি এ গবেষণায় একসঙ্গে কাজ করছেন। দ্বিতীয়জন বললেন, এ‌ত উল্লেখযোগ্যভাবে মৃত্যুর হার কমাতে এর আগে দেখা যায়নি, যা এ স্টেরয়েডের ওষুধটি করে দেখাল।‌

দুই বিশেষজ্ঞই ডেক্সামেথাসোনকে প্রতিটি হাসপাতালে করোনা রোগীর চিকিৎসায় ব্যবহার করার পরামর্শ দিলেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় প্রণীত জাতীয় নির্দেশিকায় ডেক্সামেথাসন প্রয়োগের কথা বলা আছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় হাসপাতালে এ ওষুধটি ব্যবহার করা হচ্ছে। ফলও ভালো পাওয়া গেছে বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।

রিপ্লাই/মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন