পিতা মাতার পাশেই চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের বিরোধীদলীয় নেতা ও প্রাদেশিক আইন পরিষদের চেয়ারম্যান মরহুম এ.কে.এম. ফজলুল কবির চৌধুরীর মেঝ সন্তান রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ.বি.এম. ফজলে করিম চৌধুরী এমপি’র মেঝ ভাই, এবিএম ফজলে রাব্বি চৌধুরী (মানিক)।

আজ শুক্রবার (৫-জুন) বেলা ২ টার দিকে ২৫ গহিরা এজে.ওয়াই.এম.এস বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মরহুমের নামাজের জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জানাজার ইমামতি ও মোনাজাত পরিচালনা করেন চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আল্লামা সৈয়দ অসিয়র রহমান আল কাদেরী।

জানাযায় মরহুমের দেশ প্রেম ও স্বাধীনতা যুদ্ধে ভূমিকা এবং ৭২ সালের পরবর্তী পারিবারিক দায়িত্বের স্মৃতি কথা তুলে ধরে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন মরহুমের ছোট ভাই সাংসদ এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী, এবি এম ফজলে শহীদ চৌধুরী, ভাতিজা ফারাজ করিম চৌধুরী, রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ, ফটিকছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান হোসাইন মুহাম্মদ আবু তৈয়ব, বাঁশখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চৌধুরী মোহাম্মদ গালীব সাদলী, রাঙামাটি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ শহীদুজ্জামান মহসীন(রোমান), রাউজান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুল ওহাব।

উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা আওয়ামীলীগের সি.সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, কাজী মোহাম্মদ ইকবাল, যুগ্ম সম্পাদক বশির উদ্দিন খাঁন, সাংগঠনিক নেতা জানে আলম জনি, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম চৌধুরী শাহ্জাহান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি প্যানেল মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদুর জব্বার সোহেল, যুগ্ম সম্পাদক আহসান হাবিব চৌধুরী, চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, চেয়ারম্যান লায়ন সরোয়ার্দী সিকদার, চেয়ারম্যান বিএম জসিম উদ্দিন হিরু, চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী, চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন, চেয়ারম্যান নূরুল আবছার বাঁশিসহ চৌদ্দ ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার ৯টি ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জানাযায় উপস্থিত ছিলেন। মরহুমের দাফন শেষে কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

করোনাকালে জানাজায় যাতে বেশি লোকসমাগম না হয় সে জন্য ফারাজ করিম চৌধুরী নিজের ফেসবুকে একাধিকবার স্ট্যাটাস দেন। যাতে তিনি বলেছিলেন, যারা প্রকৃতপক্ষে আমার চাচাকে ভালোবাসেন তারা একজন মুসলমান হিসেবে আমার চাচার জন্য দোয়া করেন। সবার প্রতি বিনীতভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি, জানাজায় এসে কেউ রাউজানবাসীকে করোনার ঝুঁকির মুখে ফেলবেন না।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here