শ্রীলঙ্কায় দুই বছর আগে মুসলিমবিরোধী দাঙ্গায় নিজেদের ভূমিকার জন্য ক্ষমা চেয়েছে ফেসবুক। ওই ঘটনায় ফেসবুকের কী ভূমিকা ছিল তা খতিয়ে দেখতে প্রতিষ্ঠানটি যে মানবাধিকার সংস্থাকে নিয়োগ দিয়েছিল, তাদের এক প্রতিবেদনের পর, সোশ্যাল মিডিয়ার এই প্লাটফর্ম তাদের ভুল স্বীকার করলো।
মানবাধিকার সংগঠন আর্টিকেল ওয়ান বলছে, ফেসবুকের মাধ্যমে ঘৃণামূলক বক্তব্য ও গুজব ছড়িয়ে মুসলিমবিরোধী সহিংসতা ঘটানো হয়েছে বলে তাদের তদন্তে উঠে এসেছে। তারা বলছে, ফেসবুকে এ ধরনের কন্টেন্টের মাধ্যমে মুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতা ঘটে থাকতে পারে।
মঙ্গলবার ওই তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর ফেসবুক এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, আমাদের প্লাটফর্ম অপব্যবহারের নিন্দা জানাই আমরা। এর কারণে মানবাধিকারের ওপর সত্যিকার যে প্রভাব পড়েছে তা আমরা স্বীকার করছি এবং এজন্য দুঃখ প্রকাশ করছি।
২০১৮ সালের শুরুর দিকে শ্রীলঙ্কায় মুসলিমবিরোধী দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জরুরি অবস্থা জারি ও ফেসবুক বন্ধ করে দেয় শ্রীলঙ্কার সরকার। ওই দাঙ্গায় কমপক্ষে তিনজনের মৃত্যু হয়। আর আহত হয় ২০ জন। এসময় মসজিদ ও মুসলিম ব্যক্তি মালিকাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন