আগামী সপ্তাহে ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের প্রতিরোধী টিকা মানুষের ওপর যাচাই করা শুরু হবে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন প্রজাতির প্রাণীর ওপরে কোভিড-19 টিকা প্রয়োগ করে আশার আলো দেখে বিজ্ঞানীরা হিউম্যান ট্রায়ালের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

সম্প্রতি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদলের প্রধান অধ্যাপক অ্যাড্রিয়ান হিল দ্য ডেইলি মেইলকে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে, প্রথম পর্যায়ে ১৮-৫৫ বছর বয়সী ৫১০ জন স্বেচ্ছাসেবী আগামী সপ্তাহে কোভিড-19 ভ্যাকসিন নিতে সম্মত হয়েছেন। হিল ও তার সহযোগী বিজ্ঞানীরা শিম্পাঞ্জির শরীরে সার্স সিওভি-2 ভাইরাস ইঞ্জেকশন দিয়ে শিম্পাঞ্জির শরীরে ভাইরাসের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডি তৈরি করেন।

এই অ্যান্টিবডিই টিকা হিসেবে মানুষের শরীরে দিলে সার্স সিওভি-2 ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ তৈরি হবে বলে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদল নিশ্চিত। ইতোমধ্যে প্রাণীদেহে এই টিকা ব্যবহার করে উল্লেখযোগ্য ফল পাওয়া গেছে। এবার মানবদেহে ট্রায়াল করার পর টিকাটির কার্যকারিতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে যে, বিশ্বজুড়ে প্রায় ৭০টি করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা নিয়ে কাজ চলছে। অক্সফোর্ডের গবেষণা তার মধ্যে একটি। হিউম্যান ট্রায়ালই প্রমাণ করে দেবে যে এই টিকা মানুষের শরীরের জন্য যথেষ্ট নিরাপদ কিনা।

অ্যাড্রিয়ান হিল বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে, নতুন ভ্যাকসিন ব্যাপকভাবে উৎপাদনের জন্য বিভিন্ন ফার্মা কোম্পানির সঙ্গে কথা বলবেন। ইতোমধ্যে অক্সফোর্ড ভ্যাকসিন গ্রুপের ক্লিনিকাল টিম ও জেনার ইনস্টিটিউট যৌথভাবে সেপ্টেম্বর মাসে এই টিকা তৈরি করতে সমর্থ হবে।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here