এবার ধর্মমন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েচ্ছে মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবের এ সময়ে বাংলাদেশের মসজিদগুলোতে জামাআত ও জুমআ আদায়ে করণীয় ঠিক করতে আলেম-ওলামাদের পরামর্শ গ্রহণ করে। পরামর্শক্রমে মন্ত্রণালয় মসজিদের পাঞ্জেগানা জামাআতে ৫ জন এবং জুমআ জামাআতে ১০ জনকে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেয়।

আর বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পুরো বিশ্ব। তাই আমাদের দেশও বর্তমানে বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। করোনাভাইরাসের বর্তমান চিত্র খুবই ভয়াবহরূপ নিয়েছে এবং ইতোমধ্যে এ ভাইরাস আমাদের দেশেও মহামারি আকার ধারণ করছে। সর্বত্র দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। আক্রান্তদের অনেকেই মৃত্যুবরণ করছেন। এ মুহূর্তে আল্লাহর কাছে দোয়া এবং শরিয়তের আলোকে সতর্কতা অবলম্বন করা ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।
তাই সরকার ইতিমধ্যে যেকোনো ধরনের বড় জমায়েত নিষিদ্ধ করেছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার আদেশ দিয়েছে। নামাজের জামাআত ও জুমআর উপস্থিতিও সীমিত রাখার আদেশ জারি করেছে। ইসলামি শরিয়তের দৃষ্টিতেও এসব সতর্কতামূলক নির্দেশনা সঠিক ও যথার্থ।

মন্তব্য করুন

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন