শিশু তুহিন হত্যা মামলার রায়, বাবা-চাচার মৃত্যুদণ্ড

শেয়ার করুন:


সুনামগঞ্জে পাঁচ বছরের শিশু তুহিন মিয়াকে হত্যার দায়ে তার বাবা আবদুল বাছির ও চাচা নাছির উদ্দিনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার সুনামগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার এ রায় দেন।

রায়ে মামলার অপর দুই আসামি তুহিনের চাচা আবদুল মোছাব্বির ও জমশেদ আলীকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

সুনামগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) শামসুন্নাহার বেগম শাহানা আজকের রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

একই মামলায় ১০ মার্চ সুনামগঞ্জের শিশু আদালতের বিচারক তুহিনের ১৭ বছর বয়সী কিশোর চাচাতো ভাইকে আট বছরের আটকাদেশ দেন। তার বয়স ১৮ বছর হলে তাঁকে কারাগারে পাঠানো হবে।

গত বছরের ১৪ অক্টোবর সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কেজাউরা গ্রামে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সকালে বাড়ির পাশের একটি গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় তুহিনের রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়। তুহিনের গলা, দুই কান ও যৌনাঙ্গ কাটা ছিল। পেটে বিদ্ধ ছিল দুটি ছুরি। এ ঘটনায় তুহিনের মা মনিরা বেগম বাদী হয়ে পরের দিন অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে দিরাই থানায় মামলা করেন। এই মামলায় পুলিশ তুহিনের বাবা, তিন চাচা ও এক চাচাতো ভাইকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ তুহিন হত্যা মামলায় গত ৩০ ডিসেম্বর এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়। আদালতে মামলার অভিযোগ গঠন হয় ৭ জানুয়ারি।


শেয়ার করুন:

রিপ্লাই/মন্তব্য করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন
এখানে আপনার নাম লিখুন