জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে পটিয়া মুজিব শতবর্ষ উদযাপন পরিষদ নানা পরিকল্পনা নিয়েছে।

রোববার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পটিয়া থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও হুইপ শামসুল হক চৌধুরী এম.পি।

তিনি জানান, পটিয়ায় মুজিববর্ষ বর্ণাঢ্যভাবে উদযাপন করতে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছিল। পটিয়া স্কুল মাঠে ১০ হাজার ছাত্র-ছাত্রীর উপস্থিতিতে মুজিববর্ষ পালন করার কথা থাকলে ও করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে তা বাতিল করা হয়েছে।

হুইপ শামসুল হক চৌধুরী বলেন, ১৭ মার্চ কর্মসূচি শুরু হবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে। সেদিন ১০০ প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও পেশাজীবী শিক্ষক, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ারদের নিয়ে সীমিত সমাবেশ হবে, যাতে বঙ্গবন্ধুর জীবনী আলোচনা করা হবে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০০ পাউন্ডের কেক ও ১০০টি আতশবাজি উৎক্ষেপণ উদযাপন করা হবে। ১০ হাজার ছাত্র-ছাত্রীকে মুজিববর্ষের লোগো সম্বলিত গেঞ্জি ও মগ বিতরণ করা হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ তুলে ধরতে প্রতিটি স্কুলে মুজিবকর্ণার চালু করা হবে।

১৬ মার্চ রাত ৮টা হতে পটিয়ার ভেল্লাপাড়া থেকে ২২ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে আলোকসজ্জা করা হবে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পটিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহারুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস, পটিয়া পৌর মেয়র হারুনুর রশিদ, সাবেক এমপি চেমন আরা তৈয়ব, পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারহানা জাহান উপমা, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ খ ম

শামসুজ্জামান, পটিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ডাক্তার তিমির বরণ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাজেদা বেগম শিরু, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বিজন চক্রবর্তী, প্রদীপ দাশ, আ.ম.ম টিপু সুলতান, নুরুল হাকিম, মুজিববর্ষ উদযাপন মিডিয়া উপকমিটির আহ্বায়ক আসিফ সিরাজ ও মহসিন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন