চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনকে বিএনপি চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

সোমবার ডা. শাহাদাত হোসেনসহ নেতাকর্মীদের নিয়ে শাহ আমানত(র.) মাজার সংলগ্ন মসজিদে জোহরের নামাজ আদায় করে মাজার জিয়ারত করেন খসরু।

শাহাজাদা এনায়েত উল্লাহ খান ডা.শাহাদাত হোসেনের সাফল্য কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন। পরে মাজার গেইট থেকে গণসংযোগ শুরু হয়ে ধানের শীষের পক্ষে নগরীর জেল রোড, বান্ডেলরোড, পাথরঘাটা, আরসিসি রোড, ফিরিঙ্গিবাজার, কবি নজরুল এভিনিউ, আলকরণ রোড, নিউ মার্কেট মোড়, জুবলীরোড়, এনায়েত বাজার, লাভলেইন হয়ে নাসিমন ভবনে এসে শেষ হয়।

এ সময় বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আজকের গণসংযোগে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতি প্রমাণ করে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন একজন জনপ্রিয় প্রার্থী। ডাঃ শাহাদাত হোসেন অত্যন্ত ত্যাগী ও পরিচ্ছন্ন নেতা। একজন পেশাজীবী হিসেবে ও তার জনপ্রিয়তা অতুলনীয়। তার বিজয়ী হওয়ার অনেক উপাদান আছে। বিএনপি দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় দল। বিএনপির নেতাকর্মীরাও সকলেই ঐক্যবদ্ধ। বিএনপির নেতাকর্মীরা অনেক পরিশ্রমী। তারা ভয়কে জয় করতে জানে। তাই সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে আমরা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। তিনি ডাঃ শাহাদাত হোসেনকে ধানের শীষে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে দায়িত পালন করার আহবান জানান।

তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেকটি কেন্দ্রে নিয়মতান্ত্রিকভাবে নির্বাচন করতে হবে। কারণ আমরা ভোট ডাকাতদের বিরুদ্ধে নির্বাচন করছি। এটা কোন সাধারণ নির্বাচন নয়। প্রত্যেক নেতাকর্মীকে কেন্দ্রে শক্ত অবস্থান নিতে হবে। যাতে বাইরের কেউ এসে কোন সুযোগ নিতে না পারে। ভয়কে জয় করে শক্তিশালী অবস্থান থেকে নির্বাচন করতে হবে। আওয়ামীলীগ রাষ্ট্রযন্ত্র ও সরকারী বাহিনীর উপর নির্ভরশীল। তারা ভীত বলেই অন্যের উপর নির্ভর করে।

এ সময় বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, প্রথমে আমি চট্টগ্রামের ২০ লক্ষ ভোটারকে স্বাগত জানাচ্ছি। আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব- এই গণতান্ত্রিক অধিকার, ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য ভোটাররা যেন ভোটকেন্দ্রে আসেন এবং ধানের শীষে ভোট দেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে তিনজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে। এখানে ভয় পাবার কিছু নেই। আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আমাদের গবেষণা সংস্থা আছে, ডাক্তাররা আছেন। তারা দেখছেন এবং এই সমস্যা থেকে দেশবাসী অবশ্যই মুক্ত হবেন। চট্টগ্রামের সাধারণ জনগণের কাছে আমার বিনীত নিবেদন, চট্টগ্রামকে একটা আধুনিক, নান্দনিক, স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়তে চাই আমরা। বিশ্বের অন্যতম নগরীতে পরিণত করতে চাই। এজন্য সবার আগে প্রয়োজন ভোটারদের সমর্থন। আশা করি, ভোটারেরা তাদের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে নিয়ে আমাকে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সাবেক মন্ত্রী জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর, বিএনপির কেন্দ্রীয় শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দীন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ান, বিএনপি নেতা চাকসু ভিপি নাজিম উদ্দিন প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন