বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি বলেছেন,‘ভারত থেকে ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আনা হচ্ছে। এতে কম মূল্যে বিদ্যুৎ পাওয়া যাবে এবং উৎপাদনে বড়ধরণের খরচ প্রয়োজন হবে না। তিনি বলেন,আগামী দুই বছরের মধ্যে ভারত থেকে আরো দুইহাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আনার প্রস্তুতি চলছে।
প্রতিমন্ত্রী আজ দুপুরে সিলেট নগরীতে ‘টেকসই জ্বালানি প্রসারে গ্রিন ব্যাংকিং এর ভূমিকা’ শীর্ষক এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

‘ভুটান ও নেপালের ৪০ হাজার মেগাওয়াট করে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষমতা রয়েছে’ এ কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এ দুটো দেশ প্রতি ইউনিট মাত্র দু‘টাকা মূল্যে বিদ্যুৎ উৎপন্ন করতে পারে এবং দেশ দু’টি ৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রপ্তানি করতে সক্ষম। তাই তারা ইতিমধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ হয়ে গেছে। আরো দশ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রপ্তানি করতে পারলে খুব সহজেই উন্নত দেশে পরিণত হবে। ’

এ দেশ দুটো থেকে বিদ্যুৎ আনার চেষ্টা চলছে এ কথা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন,ভূটান ও নেপাল সরকার ইতিমধ্যে সম্মত হয়েছে। তাদের সেখানে ইনভেস্ট করে বিদ্যুৎ নিয়ে আসার চিন্তাভাবনা চলছে।

‘শিক্ষা ব্যবস্থা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো গবেষণাভিত্তিক নয় এ কথা উল্লেখ করে জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যে ‘এনার্জি রিসার্চ কাউন্সিল’ একটি সংস্থা গঠন করেছে। গবেষণার মাধ্যমে কোথায় কিভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন টেকসই ও সাশ্রয়ী হবে সে দিকনির্দেশনা আমরা এই সংস্থার মাধ্যমে পাবো ’।

মন্তব্য করুন

আপনার কমেন্ট লিখুন
আপনার নাম লিখুন