নিজস্ব প্রতিবেদন:

জামা-কাপড় তো নিয়মিত পরিষ্কার করতে হবেই। সেইসঙ্গে আছে বিছানার চাদর, বালিশের কভার, মশারি, কুশন কভার, পর্দা ইত্যাদি। সুস্থ থাকতে চাইলে পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই। পরিচ্ছন্ন থাকার জন্য নিয়মিত পরিষ্কার করতে হয় এসব কাপড়-চোপড়। মুশকিল বাঁধে বর্ষাকালে। কারণ এসময় রোদের দেখা মেলে কম। দিনভর বৃষ্টি নয়তো আকাশ থাকে মেঘলা। স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ার কারণে কাপড় শুকাতেই চায় না। এক কাপড় শুকাতে হয়তো তিনদিন চলে যায়! এদিকে এতদিন ধরে ভেজা থাকার কারণে কাপড় থেকে বোটকা গন্ধ বের হতে শুরু করে। বৃষ্টির মৌসুমে এ ধরনের সমস্যা থাকবেই। এর জন্য আবহাওয়ার পাশাপাশি দায়ী কাপড় শুকানোর ভুল পদ্ধতি।

১. বর্ষাকালে কাপড় ধুয়ে দিলে তা শুকাতে বেশ সময় লাগে। অনেক সময় কাপড় শুকালেও কাপড় থেকে একটা গন্ধ পাওয়া যায়। এর অন্যতম কারণ কাপড় শুকানোর জন্য যে পরিমাণ বাতাস প্রয়োজন সে পরিমাণ বাতাস না পেলে কাপড় দিয়ে গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে।

২. ময়লা কাপড় জমিয়ে রাখবেন না ।এক সঙ্গে অনেকগুলো ময়লা কাপড় বেশ কিছুদিন ফেলে রাখলে তা থেকে বেশি দুর্গন্ধ ছড়ায়। এজন্য অনেকগুলো কাপড় একসঙ্গে না কেঁচে অল্প অল্প করে কাপড় ধুয়ে ফেলুন। তাহলে আর কাপড় থেকে গন্ধ ছড়াবে না।

৩. বর্ষাকালে ঘামে ভেজা কাপড় কাচার আগে কিছু সময় জলে ভিজিয়ে রাখুন। এরপর ডিটারজেন্ট দিয়ে কাপড় ধুয়ে ফেলে শুকাতে দিন।

৪. জামা-কাপড়ের ফাঙ্গাস দূর করতে ভিনিগার ও বেইকিং সোডা বেশ কার্যকর। এছাড়াও দুর্গন্ধ দূর করতে এই উপাদানগুলো ভালো কাজ করে।

৫. কাপড় শুকনোর জন্য কখন রোদ উঠবে তার জন্য অপেক্ষা না ফ্যানের বাতাসের নিচে কাপড় ছড়িয়ে দিন বা জানালার কাছাকাছি স্থানে কাপড় শুকাতে দিন।

৬. কাপড়ে সজীব ঘ্রাণ আনতে লেবু বা গোলাপের সুগন্ধযুক্ত ডিটারজেন্ট ব্যবহার করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়।

৭. এছাড়া ওয়ারড্রবে চক বা সিলিকনের পাউচ রাখলে তা কাপড়ের গন্ধ দূর করতে সাহায্য করবে। তাই ওয়ারড্রবে শুকনো কাপড় ভাঁজ করে রাখার সময় চক বা সিলিকনের পাউচ রেখে দিতে পারেন।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here