নিজস্ব প্রতিবেদক:

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে এবার রাজধানীর পৃথক ২৩টি স্থানে কোরবানির পশু বিক্রির জন্য হাট বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। ঢাকা দুই সিটি করপোরেশনের মধ্যে ডিএনসিসি এলাকায় ১০টি এবং ডিএসসিসি এলাকায় ১৩টি হাট বসবে।

রোববার (১৩ জুন) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রীর মো. তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

সভায় জানানো হয়, উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ১০ ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৩টি অস্থায়ী গরুর হাট বসবে। পাশাপাশি ডিএনসিসির গাবতলীর স্থায়ী পশুর হাট ও ডিএসসিসির সারুলিয়া স্থায়ী পশুর হাটেও পশু বিক্রি হবে।

ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম জানান, কোরবানির পশুর হাটে এবারে প্রবেশ ও বাহির পথ আলাদা করা হবে। করোনা প্রতিরোধে পর্যাপ্ত মাস্ক সরবরাহ করা হবে। বসানো হবে জীবানু নাশক স্প্রে বক্স।

এবার কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে ঢাকার তেজগাঁও, ভাসানটেক পশুর হাট বসবে না। আর ঢাকা উত্তরে পশু জবাই করার জন্য ২৭০টি জায়গা বরাদ্দ করা আছে। এ বছর ঢাকা উত্তরের ৫৪ ওয়ার্ডে পশু কোরবানির জন্য ২৭০ স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। একইভাবে দক্ষিণের ৭৫ ওয়ার্ডে ৩৭৫ জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here