করোনা পরিস্থিতির জন্য আগামী ১৬ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানো হয়েছে। কয়েক দফা ছুটি বাড়ানোর পর আগামী ২৪ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খোলার কথা রয়েছে। তার আগে ১৭ মে আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়ার কথা। কিন্তু দেশের এমন পরিস্থিতিতে খুলছে না আবাসিক হল।

গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে পূর্বঘোষিত সময় অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে কি না এ বিষয়ে ঈদের পরে বৈঠক হবে। তখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে। এছাড়া সরকারের সিদ্ধান্তের বিষয়টিও রয়েছে। লকডাউন পুনরায় বাড়ে কিনা সেটিও বিবেচনায় রয়েছে।

আজ বুধবার (৫ মে) বৈঠকে বসেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিরা। পূর্বঘোষিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৭ মে  আবাসিক হল খুলে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন বৈঠকে উপস্থিত একাধিক ভিসি। একই সঙ্গে আগামী জুন থেকে শুরু হওয়া বিভিন্ন স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ সালের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা পূর্ব নির্ধারিত তারিখে অনুষ্ঠিত হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন তারা।

বৈঠকে উপস্থিত উপাচার্য পরিষদের সদস্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের খোলার বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এখন পর্যন্ত পূর্বে সিদ্ধান্ত বহাল রয়েছে।

রিপ্লাই দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here